1. mahadihasaninc@gmail.com : admin :
  2. hossenmuktar26@gmail.com : Muktar hammed : Muktar hammed
কুরআন অবমাননাকারী হিজড়া সাদ্দামের অপরাধের কর্মকাণ্ড বেড়েই চলেছে থামছে না কোনভাবেই নিরব ভূমিকায় প্রশাসন - dailybanglarpotro
  • June 15, 2024, 3:10 pm

শিরোনামঃ
রাজশাহী নগরীতে ৪ নারীসহ ৮ ভুয়া সাংবাদিক গ্রেফতার রাজশাহী সিটি প্রেসক্লাবের নয়া কমিটির দায়িত্ব গ্রহন মহানগর ছাত্রলীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক জান্নাতুল ফেরদৌস পিয়ার উদ্যোগে বিশ্ব পরিবেশ দিবসে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালিত প্রকৃতি ও পরিবেশ সুরক্ষায় ‘গ্রিন কোয়ালিশন’ গঠন দুর্গাপুরে আলিপুর মক্কা আল-মদিনা ডায়াগনস্টিক সেন্টার উদ্বোধন চারঘাট উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী আলহাজ্ব ফখরুল ইসলাম আনারস প্রতীকে বিজয়ের দ্বারপ্রান্তে  পঞ্চগড়ে বঞ্চিত শিশুদের আনন্দ দিতে শিশুস্বর্গের নানা আয়োজন গৌরনদী উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থীর অন্তরঙ্গ ভিডিও ভাইরাল যমুনা লাইফের সাফল্যের কারিগর কামরুল হাসান খন্দকারের নেতৃত্বের ৫ বছর দুর্গাপুর উপজেলার দুটি কেন্দ্রে সংঘর্ষ; গুরুত্বর আহত ১২

কুরআন অবমাননাকারী হিজড়া সাদ্দামের অপরাধের কর্মকাণ্ড বেড়েই চলেছে থামছে না কোনভাবেই নিরব ভূমিকায় প্রশাসন

  • Update Time : Saturday, July 15, 2023
  • 320 Time View

চাঁপাইনবয়াবগঞ্জ প্রতিনিধি: চাঁপাইনবাবগঞ্জের হিজড়া সম্প্রদায়ের সাদ্দাম হোসেন ওরফে (প্রার্থনা)বারঘরিয়া নতুন বাজারের গ্রুপ লিডার,হিজড়া সাদ্দামের অপরাধ কর্মকাণ্ড একের পর এক বেড়েই চলেছে,থামছে না কোনভাবেই দেখছে না কেউ। আজ প্রকাশ্য নেশাগ্রস্ত অবস্থায় পবিত্র কুরআন হাতে,অন্যদিকে বাম হাতে থাকা সিগারেট নিয়ে কিরা কসম কাটার একটি দৃশ্য ভিডিও সহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ইতিমধ্যেই ভাইরাল হওয়া বিষয়টা নিয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা জুড়ে সমালোচনার ঝড় বইছে। যা কোনভাবেই মেনে নিতে পারছেনা সুশীল সমাজ। এ বিষয়ে পবিত্র কুরআন অবমাননা বিষয়টি নিয়ে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলাবাসি। সেই সাথে তাকে দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবি জানান সর্বস্তরের ধর্মপ্রাণ মুসলিম ভাইয়েরা।।

পূর্বের তার নামে একাধিক অপরাধ কর্মকাণ্ডের নিউজ প্রকাশিত।

ধারের টাকা শোধ করে বন্ধকের স্বর্নালংকার আনতে গিয়ে মারধরের স্বীকার গৃহবধূ

হিজরা সাদ্দামের দৌরাত্ম বেড়েই চলেছে,কি ভাবে হলো হিজড়া বছর ৫ এক আগে সদর স্টেশন পাউরুটি ফ্যাক্টরিতে মিস্ত্রি হিসেবে কাজ করতেন সাদ্দাম,হিজরাদের প্রতিদিনের আয় রোজগার শুনে,যোগ দিলেন সাদ্দাম বিশেষ অনুসন্ধানে বেরিয়ে আসলো সার্জারি ছাড়াই হিজড়ার খাতায় নাম প্রতিদিনের তালির,আয় রোজগার ৫ হাজারের উপর,কথিত-হিজড়া, সাদ্দামের।

ত্রিশ হাজার টাকা ধার নেয়ার বিপরীতে বন্ধক দিয়েছিলেন,১১ আনা ওজনের সোনার চেইন ও আংটি। এমনকি এই ধারের টাকা নেয়ার পর দিতে হয়েছে মাসে ৩ হাজার করে টাকা। চাঁপাইনবাবগঞ্জে ধারের টাকা পরিশোধ করে সোনার অলংকার ফিরিয়ে আনতে গিয়ে মারধর লাঞ্ছিত হয়েছেন এক গৃহবধূ। এমনকি ভয়ভীতি ও হুমকি দেয়া হয়েছে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার লক্ষীপুর বানঝাপাড়া এলাকার মৃত মোস্তাকিম আলীর মেয়ে মোসা. স্বর্ণালী খাতুনকে (৩১)।

এনিয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন ভুক্তভোগী নারী। সদর উপজেলার বারোঘরিয়া পুলপাড়া গ্রামের মো. মাসুদের সন্তান সাদ্দাম ওরফে প্রার্থনা হিজরার বিরুদ্ধে এই মারধর ও ভয়ভীতি প্রদানের অভিযোগ উঠেছে।

অভিযোগের অনুলিপি,স্থানীয় বাসিন্দা ও হামলার শিকার নারী সূত্রে জানা যায়,গত ৭ মাস আগে সোনার ৮ আনা ওজনের পাক চেইন ও ৩ আনা ওজনের আংটি বন্ধক রেখে সাদ্দাম ওরফে প্রার্থনা হিজরার কাছ থেকে ৩০ হাজার টাকা ধার নেন স্বর্ণালী খাতুন। চুক্তি হয় এতে মাসে ৩ হাজার টাকা করে লাভ দিতে হবে। গত ১০ মে সন্ধ্যা ৬টা ৪৫ মিনিটের দিকে ধার ও লাভের সব টাকা ফেরত দেয় স্বর্ণালী খাতুন। পরে বন্ধক রাখা সোনার অলংকার ফেরত চাইলে অন্য জায়গায় রয়েছে জানিয়ে আগামীকাল দিব বলে জানায়।

স্বর্ণালী খাতুন বলেন,টাকা পরিশোধ করার পর সোনার অলংকার না পেয়ে পরেরদিন আসতে বললে সরল বিশ্বাসে বাড়ি ফিরে আসি। পরদিন সকাল ৭টার দিকে তার বাসায় গেলে দিব দিছি বলে নানরকম টালবাহানা শুরু করে। সেদিন দিবাগত রাত সাড়ে ১১টার দিকে তার বাসা থেকে আসি। সর্বশেষ গত ২২ মে আবার তার বাড়িতে গিয়ে সোনার জিনিসপত্র ফেরত চাইলে একইভাবে টালবাহানা করতে থাকে। এর প্রতিবাদ করলে আমাকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ শুরু করে। গালিগালাজ দিতে নিষেধ করলে আমাকে বেধড়ক মারধর করে।

তিনি আরও বলেন,শুধু মারধর করে ক্ষান্ত হয়নি উল্টো আমাকে প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে সাদ্দাম ওরফে প্রার্থনা হিজরা। টাকা শোধ করার পরও এমন অত্যাচার ও ভয়ভীতি দেখানোর কারনে বর্তমানে জীবন নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। বাধ্য হয়ে থানায় অভিযোগ দিয়েছে। আশাকরি সুষ্ঠু বিচার পাব।

স্থানীয় বাসিন্দা সাজেদা বেগম, তরিকুল ইসলাম জানান,সাদ্দাম ওরফে প্রার্থনা হিজরা বিভিন্ন সময়ে মানুষকে টাকা ধার দেয়। কিন্তু ধার নেয়া ব্যক্তিদের সাথে সে নানাভাবে প্রতারণা করে। এমনভাবেই স্বর্ণালী খাতুন টাকা শোধ করলেও তার স্বর্ণালঙ্কার ফেরত দিচ্ছে না। তাকে মারধর ও হুমকি প্রদান করেছে, সাদ্দাম ওরফে প্রার্থনা হিজরা।

অভিযোগ অস্বীকার করে এবিষয়ে সাদ্দাম ওরফে প্রার্থনা হিজরা বলেন, আমাকে টাকা ফেরত দেয়ার পরপরই তার গহনা ফেরত দিয়েছি। কিন্তু আমাকে হয়রানী করতেই এমন মিথ্যা অভিযোগ করছে স্বর্ণালী।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাজ্জাদ হোসেন জানান,অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে৷

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category