1. mahadihasaninc@gmail.com : admin :
  2. hossenmuktar26@gmail.com : Muktar hammed : Muktar hammed
আদালতে মামলা চলমান অবস্থায় চাঁপাইনবাবগঞ্জে ফিল্মি স্টাইলে জমি দখলের চেষ্টা - dailybanglarpotro
  • June 15, 2024, 2:54 pm

শিরোনামঃ
রাজশাহী নগরীতে ৪ নারীসহ ৮ ভুয়া সাংবাদিক গ্রেফতার রাজশাহী সিটি প্রেসক্লাবের নয়া কমিটির দায়িত্ব গ্রহন মহানগর ছাত্রলীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক জান্নাতুল ফেরদৌস পিয়ার উদ্যোগে বিশ্ব পরিবেশ দিবসে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালিত প্রকৃতি ও পরিবেশ সুরক্ষায় ‘গ্রিন কোয়ালিশন’ গঠন দুর্গাপুরে আলিপুর মক্কা আল-মদিনা ডায়াগনস্টিক সেন্টার উদ্বোধন চারঘাট উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী আলহাজ্ব ফখরুল ইসলাম আনারস প্রতীকে বিজয়ের দ্বারপ্রান্তে  পঞ্চগড়ে বঞ্চিত শিশুদের আনন্দ দিতে শিশুস্বর্গের নানা আয়োজন গৌরনদী উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থীর অন্তরঙ্গ ভিডিও ভাইরাল যমুনা লাইফের সাফল্যের কারিগর কামরুল হাসান খন্দকারের নেতৃত্বের ৫ বছর দুর্গাপুর উপজেলার দুটি কেন্দ্রে সংঘর্ষ; গুরুত্বর আহত ১২

আদালতে মামলা চলমান অবস্থায় চাঁপাইনবাবগঞ্জে ফিল্মি স্টাইলে জমি দখলের চেষ্টা

  • Update Time : Sunday, April 28, 2024
  • 42 Time View

মো: ফারুক আহমেদ: চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি: চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার বারোঘরিয়া ইউনিয়নের চুনারীপাড়া এলাকায় জমির মালিকানা নিয়ে পৃথক দাবী উঠেছে। জমির দখলদারিত্ব ধরে রাখতে মরিয়া কায়েশ পক্ষের লোকজন৷। ক্রয়কৃত জমির মালিকানা নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে রয়েছে দীর্ঘদিনের বিরোধ । এ নিয়ে নবাবগঞ্জ সদর সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে মামলা করেন ভুক্তভোগী আঃ সালামের স্ত্রী হালিদা বেগম। আদালতে মামলা চলমান অবস্থায় কায়েশের নেতৃত্বে সালাম ও সাহাবুল ড্রাইভার সহ দশ থেকে বারো জন সন্ত্রাসী হাম্বল, হাতুর, শাব্বল নিয়ে এসে ফিল্মি স্টাইলে জমির উপর নির্মিত ঘর, বাউন্ডারি হলসহ ঘরের চালা জোরপূর্বক আদালতে মামলা চলমান অবস্থায় ভেঙ্গে ফেলেন।

বর্তমান জমির মালিক আঃ সালামের স্ত্রী হালিদা বেগম বলেন, ওই জমি তার স্ত্রী’র নামে তিনি ক্রয় করেন। প্রায় ১২ বছর আগে উক্ত জমি তিনি টগরী নেসার কাছ থেকে তার স্ত্রীর নামে ক্রয় করেন। হঠাৎ করেই কয়েকবছর আগে কায়েশ নামে এক ব্যক্তি উক্ত জমির মালিকানা দাবি করে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। কায়েশ ও তার লোকজন থানায় সঠিক কাগজপত্র দেখাতে না পারায় মিমাংসা না করেই তারা থানা থেকে চলে যান৷ পরবর্তীতে বিষয়টি নিষ্পত্তি না হওয়ার আব্দুস সালামের স্ত্রী আদালতে একটি মামলা করেন।

আঃ সালাম ও তার স্ত্রী বলেন, কায়েশ আমাদের দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন ভাবে হুমকি ধামকি দিচ্ছেন। ঘর ভাংচুরের ঘটনায় আদালতে আরেকটি মামলা দায়ের করেছি। আমরা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল, তাই আদালতের আশ্রয় নিয়েছি, আদালত যে রায় দিবেন সে রায় আমরা মেনে নিবো।

হামলার ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, কায়েশের সন্ত্রাসী বাহিনী মুহুর্তের মধ্যে ঘরের বাউন্ডারি, ঘরের চালা, ভেঙ্গে ফেলে। তার কিছুক্ষণ পর তারা ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উক্ত জমির মালিকানা নিয়ে বেশ কয়েকবছর ধরেই আঃ সালামের সঙ্গে বিরোধ করে আসছিল কায়েশ। জমির মালিকানা নিয়ে উভয়পক্ষ সমঝোতা করার জন্য থানায় বসেছিল। কিন্তু কায়েশ জমির সঠিক কাগজপত্র দেখাতে না পারলেও মিমাংসা করেননি৷ তারপর আঃ সালামের স্ত্রী আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন কায়েশের বিরুদ্ধে। আদালতে মামলা চলমান থাকা অবস্থায় কায়েশ তার সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে বসত ভিটা ভাংচুর করে চলে যায়। তারা আরও বলেন, অনেক বছর আগেই এই জমি আঃ সালাম টগরী নেসার কাছ থেকে তার স্ত্রীর নামে ক্রয় করেন।

এ বিষয়ে সদর মডেল থানার ওসি বলেন, সংবাদ পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে। তারা কেউই থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়নি, অভিযোগ দিলে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category